ঢাকা ০৭:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
ঠাকুরগাঁওয় পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, অল্প বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় পুরো এলাকা বগুড়ার জোড়া খুনের প্রধান আসামী গ্রেফতার বালিয়াডাঙ্গীতে এইচএসসি ২০০২ ব্যাচের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত দিনাজপুরে শ্যামলী পরিবহনের ধাঁক্কায় এ্যাম্বুলেন্স চালকের মর্মান্তিক মৃত্যু রংপুরে তিস্তার পানি বিপৎসীমার ওপরে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ডোমারে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হলো শতবর্ষী অনুষ্ঠান লালমনিরহাটে বজ্রপাতে ৫ টি গবাদিপশু পুড়ে যায় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি (বিএমএসএস) নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি এস এম জহিরুল ইসলাম বিদ্যুত ও সাধারণ সম্পাদক মো: জসিম উদ্দিন জসিম ডোমারে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার নামাজ অনুষ্ঠিত পবিত্র ঈদুল আযহার জামাতে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : ডিএমপি কমিশনার

সর্জিনার লাশ পানির ট্যাংকে, স্বামী পলাতক, 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৩০:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৬ নভেম্বর ২০২২ ৪৩ বার পড়া হয়েছে

কামরুল ইসলাম চট্টগ্রাম, বাড়িওয়ালার জিম্মায় দিল সাত মাসের শিশু কে ফিল্ম স্টাইলে থানায় গিয়ে ‘স্ত্রী নিখোঁজের’ জিডি করে ।কিন্তু জিডির ১দিন পর বাসার ছাদের পানির ট্যাংকে স্ত্রীর লাশ পাওয়ার পর থেকেই উধাও হয়ে গেল স্বামী মো. হাসান। গতকাল শনিবার বিকালে নগরীর ইপিজেড থানার বন্দরটিলা এলাকায় ওই নারীর লাশ উদ্ধারের পর থেকে তার হদিস পাচ্ছে না পুলিশ। হতভাগা সর্জিনা আক্তারের (২০) বাড়ি পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কেশবপুরে। বন্দর টিলা আয়শার মার গলির খলিল হুজুর ভবনের পঞ্চম তলায় স্বামী-সন্তান নিয়ে থাকতেন তিনি। তিনি একটি তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন।

 

নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (বন্দর) মাহমুদুল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সর্জিনার স্বামী মো. হাসান নগরীতে রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন। বেশ কিছুদিন ধরে তারা ভবনটিতে থাকতেন। দুই দিন আগে হাসান তার সাত মাস বয়সী শিশু সন্তানকে বাড়িওয়ালার কাছে রেখে তার স্ত্রী ঘরে ফিরলে তাকে দিতে বলে বের হয়ে যান। আবার শুক্রবার ইপিজেড থানায় স্ত্রী নিখোঁজের জিডি করতে গিয়েছিলেন।

 

শনিবার দুপুরের পর ছাদের পানির ট্যাংক থেকে দুর্গন্ধ ছড়ালে অন্যান্য ভাড়াটিয়ারা বাড়িওয়ালাকে বলেন। এসময় ট্যাংক খুলে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। তিনি জানান, অন্তত দুই দিন আগে সর্জিনার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। হত্যার পর স্ত্রীর মরদেহ ট্যাংকে ফেলে যায় হাসান। তবে ট্যাংকটির পানি ব্যবহার না হওয়ায় বিষয়টি কেউ টের পায়নি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সর্জিনার লাশ পানির ট্যাংকে, স্বামী পলাতক, 

আপডেট সময় : ১১:৩০:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৬ নভেম্বর ২০২২

কামরুল ইসলাম চট্টগ্রাম, বাড়িওয়ালার জিম্মায় দিল সাত মাসের শিশু কে ফিল্ম স্টাইলে থানায় গিয়ে ‘স্ত্রী নিখোঁজের’ জিডি করে ।কিন্তু জিডির ১দিন পর বাসার ছাদের পানির ট্যাংকে স্ত্রীর লাশ পাওয়ার পর থেকেই উধাও হয়ে গেল স্বামী মো. হাসান। গতকাল শনিবার বিকালে নগরীর ইপিজেড থানার বন্দরটিলা এলাকায় ওই নারীর লাশ উদ্ধারের পর থেকে তার হদিস পাচ্ছে না পুলিশ। হতভাগা সর্জিনা আক্তারের (২০) বাড়ি পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কেশবপুরে। বন্দর টিলা আয়শার মার গলির খলিল হুজুর ভবনের পঞ্চম তলায় স্বামী-সন্তান নিয়ে থাকতেন তিনি। তিনি একটি তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন।

 

নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (বন্দর) মাহমুদুল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সর্জিনার স্বামী মো. হাসান নগরীতে রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন। বেশ কিছুদিন ধরে তারা ভবনটিতে থাকতেন। দুই দিন আগে হাসান তার সাত মাস বয়সী শিশু সন্তানকে বাড়িওয়ালার কাছে রেখে তার স্ত্রী ঘরে ফিরলে তাকে দিতে বলে বের হয়ে যান। আবার শুক্রবার ইপিজেড থানায় স্ত্রী নিখোঁজের জিডি করতে গিয়েছিলেন।

 

শনিবার দুপুরের পর ছাদের পানির ট্যাংক থেকে দুর্গন্ধ ছড়ালে অন্যান্য ভাড়াটিয়ারা বাড়িওয়ালাকে বলেন। এসময় ট্যাংক খুলে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। তিনি জানান, অন্তত দুই দিন আগে সর্জিনার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। হত্যার পর স্ত্রীর মরদেহ ট্যাংকে ফেলে যায় হাসান। তবে ট্যাংকটির পানি ব্যবহার না হওয়ায় বিষয়টি কেউ টের পায়নি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন