ঢাকা ০৬:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
ঠাকুরগাঁওয় পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, অল্প বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় পুরো এলাকা বগুড়ার জোড়া খুনের প্রধান আসামী গ্রেফতার বালিয়াডাঙ্গীতে এইচএসসি ২০০২ ব্যাচের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত দিনাজপুরে শ্যামলী পরিবহনের ধাঁক্কায় এ্যাম্বুলেন্স চালকের মর্মান্তিক মৃত্যু রংপুরে তিস্তার পানি বিপৎসীমার ওপরে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ডোমারে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হলো শতবর্ষী অনুষ্ঠান লালমনিরহাটে বজ্রপাতে ৫ টি গবাদিপশু পুড়ে যায় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি (বিএমএসএস) নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি এস এম জহিরুল ইসলাম বিদ্যুত ও সাধারণ সম্পাদক মো: জসিম উদ্দিন জসিম ডোমারে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার নামাজ অনুষ্ঠিত পবিত্র ঈদুল আযহার জামাতে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : ডিএমপি কমিশনার

লোহাগাড়া পল্লী বিদ্যুৎ এর ইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিমও তার হেলপার কায়সারের দুর্নীতির খতিয়ান (১)

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৪২:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ নভেম্বর ২০২২ ৬৮ বার পড়া হয়েছে

কামরুল ইসলাম চট্টগ্রাম, লোহাগাড়া জোনাল অফিসের ইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিমের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দূর্নীতির অভিযোগ পেয়ে আমরা তদন্ত করি তদন্ত সাপেক্ষে জানতে পারি। কিছু দিন পূর্বে লোহাগাড়া পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের

আওতায় পশ্চিম আমিরাবাদ খৈয়রকুল,সিকদার পাড়া,

গ্রাহকের নাম মোহাম্মদ ফরিদের বাড়িতে অবৈধ বিদ্যুৎ লাইন স্হানান্তর এক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে ইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিমের হেলপার কায়সার।

লোহাগাড়া জোনাল অফিসের ইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিমের

বাড়ি কলাউজান নোয়া হাট,এবং তার হেলপার কায়সার বাড়ি রসিদার পাড়া এই দুইজন মিলে অবৈধ বিদ্যুৎ লাইন স্হানান্তর করে গ্রাহক ফরিদের কাছ থেকে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে জমা দিতে হবে বলে একলক্ষ্য টাকা হাতিয়ে নিয়েছে অথচ পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে কোন টাকা জমা না দিয়ে অবৈধ ভাবে চারটি পোল দিয়ে লাইন স্হানান্তর কাজ করে ফেলেন।

উক্ত জোনাল অফিস বিষয়টি জানার পরও এখনো তাদের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্হা গ্রহণ করেননি।

বর্তমান লোহাগাড়া জোনাল অফিসের আওতায় সর্ব অবৈধ কাজের সাথে এই দুইজন ব্যক্তি জড়িত বলেও জানা যাই। এই বিষয়ে সেলিমের বক্তব্য নেওয়ার জন্য তার বাড়িতে এবং পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে গেলে ও তার দেখা পাইনি এবং সেলিমের মোবাইলে কল দিলে মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়,তাই তার বক্তব্য নেওয়া হয়নি।

মুলতঃইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিম তার হেলপার দিয়ে এই অবৈধ কাজ সংগ্রহ করায়।

আর সেলিমের বিরুদ্ধে ও বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে। এই বিষয়ে জিএম সহ উপরস্থ কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী গ্রাহক সহ অনেকেই, কিন্তু বর্তমান পল্লী বিদ্যুতের কিছু অফিসার সহ বর্তমান সরকারের বেশ কিছু নেতার সাথে নাকি সে গুড রিলেশন রেখে চলেন, সেই ভয়ে কেউ সেলিমের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে রাজি নয়,

তাই প্রতিনিধির সাথে যারা কথা বলেছে বা বক্তব্য দিয়েছে তারা প্রতিনিধির কাছে নাম প্রকাশ করতে নিষেধ করছেন।

অন্যদিকে সেলিমের মত কিছু দালালদের কাছে জিন্মি হয়ে পড়েছে এবং এইসব দালালদের কারণে পল্লী বিদ্যুৎ এর চেয়ারম্যান সহ পল্লী বিদ্যুতের সম্মান নষ্ট হচ্ছে। তাই এই দালালদের বিরুদ্ধে সঠিক তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্হা নেওয়ার জন্য পল্লী বিদ্যুৎ এর চেয়ারম্যান সহ উপরোক্ত কর্মকর্তাদের প্রতি বিনিত অনুরুধ জানিয়েছেন লোহাগাড়া পল্লী বিদ্যুৎ এর গ্রাহক বৃদ্ধ।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

লোহাগাড়া পল্লী বিদ্যুৎ এর ইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিমও তার হেলপার কায়সারের দুর্নীতির খতিয়ান (১)

আপডেট সময় : ০৫:৪২:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ নভেম্বর ২০২২

কামরুল ইসলাম চট্টগ্রাম, লোহাগাড়া জোনাল অফিসের ইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিমের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দূর্নীতির অভিযোগ পেয়ে আমরা তদন্ত করি তদন্ত সাপেক্ষে জানতে পারি। কিছু দিন পূর্বে লোহাগাড়া পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের

আওতায় পশ্চিম আমিরাবাদ খৈয়রকুল,সিকদার পাড়া,

গ্রাহকের নাম মোহাম্মদ ফরিদের বাড়িতে অবৈধ বিদ্যুৎ লাইন স্হানান্তর এক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে ইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিমের হেলপার কায়সার।

লোহাগাড়া জোনাল অফিসের ইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিমের

বাড়ি কলাউজান নোয়া হাট,এবং তার হেলপার কায়সার বাড়ি রসিদার পাড়া এই দুইজন মিলে অবৈধ বিদ্যুৎ লাইন স্হানান্তর করে গ্রাহক ফরিদের কাছ থেকে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে জমা দিতে হবে বলে একলক্ষ্য টাকা হাতিয়ে নিয়েছে অথচ পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে কোন টাকা জমা না দিয়ে অবৈধ ভাবে চারটি পোল দিয়ে লাইন স্হানান্তর কাজ করে ফেলেন।

উক্ত জোনাল অফিস বিষয়টি জানার পরও এখনো তাদের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্হা গ্রহণ করেননি।

বর্তমান লোহাগাড়া জোনাল অফিসের আওতায় সর্ব অবৈধ কাজের সাথে এই দুইজন ব্যক্তি জড়িত বলেও জানা যাই। এই বিষয়ে সেলিমের বক্তব্য নেওয়ার জন্য তার বাড়িতে এবং পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে গেলে ও তার দেখা পাইনি এবং সেলিমের মোবাইলে কল দিলে মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়,তাই তার বক্তব্য নেওয়া হয়নি।

মুলতঃইলেক্ট্রিশিয়ান সেলিম তার হেলপার দিয়ে এই অবৈধ কাজ সংগ্রহ করায়।

আর সেলিমের বিরুদ্ধে ও বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে। এই বিষয়ে জিএম সহ উপরস্থ কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী গ্রাহক সহ অনেকেই, কিন্তু বর্তমান পল্লী বিদ্যুতের কিছু অফিসার সহ বর্তমান সরকারের বেশ কিছু নেতার সাথে নাকি সে গুড রিলেশন রেখে চলেন, সেই ভয়ে কেউ সেলিমের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে রাজি নয়,

তাই প্রতিনিধির সাথে যারা কথা বলেছে বা বক্তব্য দিয়েছে তারা প্রতিনিধির কাছে নাম প্রকাশ করতে নিষেধ করছেন।

অন্যদিকে সেলিমের মত কিছু দালালদের কাছে জিন্মি হয়ে পড়েছে এবং এইসব দালালদের কারণে পল্লী বিদ্যুৎ এর চেয়ারম্যান সহ পল্লী বিদ্যুতের সম্মান নষ্ট হচ্ছে। তাই এই দালালদের বিরুদ্ধে সঠিক তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্হা নেওয়ার জন্য পল্লী বিদ্যুৎ এর চেয়ারম্যান সহ উপরোক্ত কর্মকর্তাদের প্রতি বিনিত অনুরুধ জানিয়েছেন লোহাগাড়া পল্লী বিদ্যুৎ এর গ্রাহক বৃদ্ধ।

শেয়ার করুন