ঢাকা ১২:৪৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
খোকসা উসাসের পক্ষে থেকে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে ফুলের শুভেচ্ছা। বগুড়ায় নারী চিকিৎসক মাত্রাতিরিক্ত ঘুমের ট্যালেট সেবনে আত্মহত্যা তিস্তা সেতুর মাঝখানে ফাটল আতঙ্কে পথযাত্রীরা। ঈমান রক্ষার দোয়া। হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী। ভারতের সঙ্গে সম্পর্ককে বিশেষ গুরুত্ব দেয় বাংলাদেশ: শেখ হাসিনা আমতলীতে বৌ-ভাতের অনুষ্ঠানে আসার পথে ব্রীজ ভেঙ্গে ৯জন নিহত ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক আরও গভীর করতে ৭টি নতুন সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের অভিযানে ৫ মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার –মাদক উদ্ধার ! দিল্লী সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ের স্ত্রীর মামলার আসামি পলাতক স্বামী জাহাঙ্গীর আলম গ্রেফতার ।

মতলব উপাদীতে সরকারি গাছ কেটে নিলেন ইউপি মেম্বার ও তার ভাই

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৫১:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ নভেম্বর ২০২২ ৪২ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নে বেশ কয়েকটি সরকারি গাছ কেটে নিয়েছেন ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম বকাউল ও তার ভাই সাখাওয়াত বকাউল। প্রশাসনের কোন অনুমতি ছাড়াই নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে চেয়ারম্যানের অজান্তেই তারা এসব গাছ কেটে বিক্রি করেন বলে জানা গেছে। সড়কের পাশে থাকা বেশ কয়েকটি দামি গাছ কেটে নেয়ায় এলাকাবাসির মাঝেও নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

 

জানা যায়, ১০/১৫ দিন পূর্বে উপাদী ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডস্থ ইয়ারপোট সড়কের পাশে থাকা ৪/৫ টি বড় বড় দামি রেইন্ট্রি কড়ই গাছ কেটে ফেলেন ৩ নং ওয়ার্ড মেম্বার কামরুল ইসলাম বকাউলের ভাই সাখাওয়াত বকাউল। আর সে গাছ গুলো তড়ি গড়ি করেই চড়া দামে অনত্র বিক্রি করে দেন তারা।

 

প্রশাসনের কোন লিখিত অনুমতি ছাড়া সরকারি গাছ কাটা নিষেধ সম্পর্কিত নিয়ম নীতি জেনেও ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম তার ভাইকে সড়কের পাশে থাকা সরকারি গাছ কাটতে সহযোগিতা করেছেন বলে জানা গেছে। আর এসব গাছ কাটার ঘটনা জেনে সাংবাদকর্মীরা তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে তার পরের দিনই তারা তড়ি গড়ি করে ট্রাকে করে গাছ গুলো উঠিয়ে নিয়ে অনত্র বিক্রি করে দেন।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মতলব দক্ষিন উপাদী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড মেম্বার ডাঃ কামরুল ইসলাম বকাউল ও তার ভাই সাখাওয়াত বকাউল বলেন, রাস্তার পাশে থাকা গাছ কাটার নিয়মনীতির কথা আমাদের জানা ছিলোনা। তাছাড়া এই গাছ গুলো আমাদের। আমরা লিজের জমিতে গাছ গুলো লাগিয়ে ছিলাম। নানা প্রশ্নের জবাবে একসময় ইউপি মেম্বার কামরুল ইসলাম বকাউল সরকারি গাছ কাটার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, যে গাছ গুলো কাটা হয়েছে তার মধ্যে আমাদের নিজস্ব এবং সরকারিও কিছু গাছ রয়েছে। আপনারা এসেছেন নিউজটি না করলে ভালো হয়।

 

এই বিষয়ে মতলব দক্ষিণ উপাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা প্রধানের সাথে আলাপকালে তিনি জানান, গাছ কাটার বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা। তারপরেও আপনাদের অভিযোগ শুনে আমি মেম্বার কামরুল ইসলামকে জিজ্ঞেস করেছিলাম। সে গাছ কাটার বিষয়টি আমার কাছে স্বীকার করেনি।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মতলব উপাদীতে সরকারি গাছ কেটে নিলেন ইউপি মেম্বার ও তার ভাই

আপডেট সময় : ১১:৫১:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ নভেম্বর ২০২২

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নে বেশ কয়েকটি সরকারি গাছ কেটে নিয়েছেন ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম বকাউল ও তার ভাই সাখাওয়াত বকাউল। প্রশাসনের কোন অনুমতি ছাড়াই নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে চেয়ারম্যানের অজান্তেই তারা এসব গাছ কেটে বিক্রি করেন বলে জানা গেছে। সড়কের পাশে থাকা বেশ কয়েকটি দামি গাছ কেটে নেয়ায় এলাকাবাসির মাঝেও নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

 

জানা যায়, ১০/১৫ দিন পূর্বে উপাদী ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডস্থ ইয়ারপোট সড়কের পাশে থাকা ৪/৫ টি বড় বড় দামি রেইন্ট্রি কড়ই গাছ কেটে ফেলেন ৩ নং ওয়ার্ড মেম্বার কামরুল ইসলাম বকাউলের ভাই সাখাওয়াত বকাউল। আর সে গাছ গুলো তড়ি গড়ি করেই চড়া দামে অনত্র বিক্রি করে দেন তারা।

 

প্রশাসনের কোন লিখিত অনুমতি ছাড়া সরকারি গাছ কাটা নিষেধ সম্পর্কিত নিয়ম নীতি জেনেও ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম তার ভাইকে সড়কের পাশে থাকা সরকারি গাছ কাটতে সহযোগিতা করেছেন বলে জানা গেছে। আর এসব গাছ কাটার ঘটনা জেনে সাংবাদকর্মীরা তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে তার পরের দিনই তারা তড়ি গড়ি করে ট্রাকে করে গাছ গুলো উঠিয়ে নিয়ে অনত্র বিক্রি করে দেন।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মতলব দক্ষিন উপাদী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড মেম্বার ডাঃ কামরুল ইসলাম বকাউল ও তার ভাই সাখাওয়াত বকাউল বলেন, রাস্তার পাশে থাকা গাছ কাটার নিয়মনীতির কথা আমাদের জানা ছিলোনা। তাছাড়া এই গাছ গুলো আমাদের। আমরা লিজের জমিতে গাছ গুলো লাগিয়ে ছিলাম। নানা প্রশ্নের জবাবে একসময় ইউপি মেম্বার কামরুল ইসলাম বকাউল সরকারি গাছ কাটার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, যে গাছ গুলো কাটা হয়েছে তার মধ্যে আমাদের নিজস্ব এবং সরকারিও কিছু গাছ রয়েছে। আপনারা এসেছেন নিউজটি না করলে ভালো হয়।

 

এই বিষয়ে মতলব দক্ষিণ উপাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা প্রধানের সাথে আলাপকালে তিনি জানান, গাছ কাটার বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা। তারপরেও আপনাদের অভিযোগ শুনে আমি মেম্বার কামরুল ইসলামকে জিজ্ঞেস করেছিলাম। সে গাছ কাটার বিষয়টি আমার কাছে স্বীকার করেনি।

শেয়ার করুন