ঢাকা ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
ভেড়ামারায় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশন আয়োজিত ঈদ পুনর্মিলনী ঠাকুরগাঁওয় পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, অল্প বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় পুরো এলাকা বগুড়ার জোড়া খুনের প্রধান আসামী গ্রেফতার বালিয়াডাঙ্গীতে এইচএসসি ২০০২ ব্যাচের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত দিনাজপুরে শ্যামলী পরিবহনের ধাঁক্কায় এ্যাম্বুলেন্স চালকের মর্মান্তিক মৃত্যু রংপুরে তিস্তার পানি বিপৎসীমার ওপরে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ডোমারে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হলো শতবর্ষী অনুষ্ঠান লালমনিরহাটে বজ্রপাতে ৫ টি গবাদিপশু পুড়ে যায় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি (বিএমএসএস) নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি এস এম জহিরুল ইসলাম বিদ্যুত ও সাধারণ সম্পাদক মো: জসিম উদ্দিন জসিম ডোমারে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার নামাজ অনুষ্ঠিত

বগুড়ায় চাঞ্চ্যল্যকর শিশু বন্ধনকে গলাকেটে হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন

মিরু হাসান, স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ০৯:১৫:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ৪৫ বার পড়া হয়েছে

 

চাঞ্চ্যল্যকর শিশু বন্ধন ৬ বছর ৬ মাস এর গলাকেটে হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন, হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ১ টি রক্তমাখা ধারালো কাস্তেসহ হত্যাকান্ডে সরাসরি জড়িত ১ জন গ্রেফতার।
গত বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল অনুমান সকাল সাড়ে ৯ টায় সদর উপজেলার নুনগোলা ইউনিয়নের শশীবদনী হিন্দুপাড়া গ্রামে আসামী সুকুমারের বাড়ির উত্তর দুয়ারী শয়ন ঘরের মেঝেতে বন্ধন নামের এক শিশুকে লোহার তৈরি ধারালো কাস্তে দ্বারা গলাকেটে গুরুত্বর রক্তাত্ত জখম করা হয়েছে। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সময় অনুমান ১২ টায় শশীবদনী হিন্দুপাড়া গ্রামে আসামী সুকুমারের বসত বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে চাঞ্চ্যল্যকর শিশু বন্ধন (৬ বছর ৬ মাস) এর গলাকেটে হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন, হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ১ (এক) টি রক্তমাখা ধারালো কাস্তেসহ হত্যাকান্ডে সরাসরি জড়িত ১ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।
আটককৃত আসামী হলেন, শ্রী সুকুমার দাস (২৫), পিতা-মৃত ঝুমুর দাস, মাতা-শ্রীমতি গীতা রানী, শশীবদনী (হিন্দুপাড়া)।
১ টি রক্তমাখা ধারালো কাস্তে (যা হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত)।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামী জানায় যে, ডিসিস্ট বন্ধন এর মা সম্পর্কে আসামীর আপন ভাগ্নি হয়। ইতিপূর্বে তাদের মধ্যে পারিবারিক বিষয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৬ এপ্রিল ডিসিস্ট বন্ধন এর মা ডিসিস্ট বন্ধন ও তার মেয়েকে নিয়ে আসামীর বাড়িতে বেড়াতে আসে। তখন হতেই আসামী তার ভাগ্নিকে শায়েস্তা করার জন্য পরিকল্পনা করিতে থাকে। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার সময় অনুমান সকাল সাড়ে ৯ টায় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে আসামী তার পূর্বপরিকল্পনা মোতাবেক তার নিজ শয়ন কক্ষের মধ্যে কৌশলে ডিসিস্ট বন্ধনকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পূর্বে হতেই ঘরের মধ্যে লুকিয়ে রাখা ধারালো কাস্তে দ্বারা হত্যার উদ্দেশ্যে গলাকেটে রক্তাক্ত জখম করে। পরবর্তীতে ডিসিস্ট বন্ধন এর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় ডিসিস্ট বন্ধনকে উদ্ধার করিয়া অজ্ঞাতনামা ইজিবাইক যোগে চিকিৎসার জন্য শজিমেক হাসপাতাল, নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডিসিস্ট বন্ধনকে মৃত ঘোষণা করে।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বগুড়ায় চাঞ্চ্যল্যকর শিশু বন্ধনকে গলাকেটে হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন

আপডেট সময় : ০৯:১৫:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

 

চাঞ্চ্যল্যকর শিশু বন্ধন ৬ বছর ৬ মাস এর গলাকেটে হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন, হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ১ টি রক্তমাখা ধারালো কাস্তেসহ হত্যাকান্ডে সরাসরি জড়িত ১ জন গ্রেফতার।
গত বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল অনুমান সকাল সাড়ে ৯ টায় সদর উপজেলার নুনগোলা ইউনিয়নের শশীবদনী হিন্দুপাড়া গ্রামে আসামী সুকুমারের বাড়ির উত্তর দুয়ারী শয়ন ঘরের মেঝেতে বন্ধন নামের এক শিশুকে লোহার তৈরি ধারালো কাস্তে দ্বারা গলাকেটে গুরুত্বর রক্তাত্ত জখম করা হয়েছে। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সময় অনুমান ১২ টায় শশীবদনী হিন্দুপাড়া গ্রামে আসামী সুকুমারের বসত বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে চাঞ্চ্যল্যকর শিশু বন্ধন (৬ বছর ৬ মাস) এর গলাকেটে হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন, হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ১ (এক) টি রক্তমাখা ধারালো কাস্তেসহ হত্যাকান্ডে সরাসরি জড়িত ১ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।
আটককৃত আসামী হলেন, শ্রী সুকুমার দাস (২৫), পিতা-মৃত ঝুমুর দাস, মাতা-শ্রীমতি গীতা রানী, শশীবদনী (হিন্দুপাড়া)।
১ টি রক্তমাখা ধারালো কাস্তে (যা হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত)।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামী জানায় যে, ডিসিস্ট বন্ধন এর মা সম্পর্কে আসামীর আপন ভাগ্নি হয়। ইতিপূর্বে তাদের মধ্যে পারিবারিক বিষয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৬ এপ্রিল ডিসিস্ট বন্ধন এর মা ডিসিস্ট বন্ধন ও তার মেয়েকে নিয়ে আসামীর বাড়িতে বেড়াতে আসে। তখন হতেই আসামী তার ভাগ্নিকে শায়েস্তা করার জন্য পরিকল্পনা করিতে থাকে। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার সময় অনুমান সকাল সাড়ে ৯ টায় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে আসামী তার পূর্বপরিকল্পনা মোতাবেক তার নিজ শয়ন কক্ষের মধ্যে কৌশলে ডিসিস্ট বন্ধনকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পূর্বে হতেই ঘরের মধ্যে লুকিয়ে রাখা ধারালো কাস্তে দ্বারা হত্যার উদ্দেশ্যে গলাকেটে রক্তাক্ত জখম করে। পরবর্তীতে ডিসিস্ট বন্ধন এর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় ডিসিস্ট বন্ধনকে উদ্ধার করিয়া অজ্ঞাতনামা ইজিবাইক যোগে চিকিৎসার জন্য শজিমেক হাসপাতাল, নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডিসিস্ট বন্ধনকে মৃত ঘোষণা করে।

শেয়ার করুন