ঢাকা ১১:০২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
ভেড়ামারায় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশন আয়োজিত ঈদ পুনর্মিলনী ঠাকুরগাঁওয় পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, অল্প বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় পুরো এলাকা বগুড়ার জোড়া খুনের প্রধান আসামী গ্রেফতার বালিয়াডাঙ্গীতে এইচএসসি ২০০২ ব্যাচের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত দিনাজপুরে শ্যামলী পরিবহনের ধাঁক্কায় এ্যাম্বুলেন্স চালকের মর্মান্তিক মৃত্যু রংপুরে তিস্তার পানি বিপৎসীমার ওপরে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ডোমারে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হলো শতবর্ষী অনুষ্ঠান লালমনিরহাটে বজ্রপাতে ৫ টি গবাদিপশু পুড়ে যায় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি (বিএমএসএস) নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি এস এম জহিরুল ইসলাম বিদ্যুত ও সাধারণ সম্পাদক মো: জসিম উদ্দিন জসিম ডোমারে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার নামাজ অনুষ্ঠিত

প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই চলছে দৌলতপুরে মাজারের পাশে জুয়া মাদক বললেন নান্টু মেম্বার

কুষ্টিয়া দৌলতপুর প্রতিনিধি 
  • আপডেট সময় : ০৯:৩৫:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪ ৫২ বার পড়া হয়েছে

 

কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার বৈরাগীরচর এলাকার পদ্মাপাড়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে হযরত ভাদু শাহ্ বাবা ও হযরত গোপাল শাহ্ এর ৮৫ তম বাৎসরিক ওরশ মোবারক অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সোমবার (২২ শে এপ্রিল) এপ্রিল ওরশ মোবারকের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়।

মাজারের ভিতরের পরিবেশ ঠিক থাকলেও।  রাত নামতেই মাজার শরীফের বাহিরে জমে উঠে বিভিন্ন রকম জুয়া ও মাদকের আসর যার নেতৃত্ব দিচ্ছে নান্টু মেম্বার ও হেদায়েত মোল্লা ।

এ বিষয়ে নাম পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বৈরাগীরচর এলাকার পদ্মাপাড়ের একাধিক ব্যক্তি বলেন,  মাজারকে ব্যবহার করে স্থানীয় কেডার হেদায়েত মোল্লা ও ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নান্টুর নেতৃত্বে বসেছে ১ হাজেরর বেশি স্টল  সে সাথে বসেছে মাদক ও জুয়ার আসর। এখানে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে  উঠতি বয়সের ছেলে এসে মাদক ও জুয়ার আসরে সর্বস্বান্ত হয়ে বাড়ি ফিরছে। আমরা শুনেছি হেদায়েত ও নান্টু মেম্বার বলছে প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই নাকি চালাচ্ছে এই মাদক ও জুয়ার আসর।

ঘটনার সততা অনুসন্ধানে গেলে, দেখা যায় মেলা জুড়ে প্রায় ৫০ টি স্থানে বসেছে জুয়ার আসর ও শতাধিক স্থানে বসেছে মাদক ক্রয় বিক্রয় ও সেবনের আসর।

এ বিষয়ে  ওরশ উদযাপন কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক  নান্টু মেম্বারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,  দুর থেকে অনেক কিছু বলা যায় কাছে এসে দেখেন মেলায় কোন জুয়া নাই আর যেখানে  সাধুর মেলা হয় সেখানে মাদক গাঁজা চলেনা এমন স্থান দেখাতে হবে কিন্তু আপনাদের । এ সময় তিনি আর বলেন আমি প্রশাসনের সকলকে ম্যানেজ করেই মেলা চালাচ্ছি যা পারেন দিখেন গা।

এমন খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে দৌলতপুর থানা পুলিশ অভিযান চালায়। অভিযান শেষে থানায় চলে আসলে আবার শুরু হচ্ছে জুয়া ও মাদকের আসর। এমন অভিযান নিয়ে সাধারন মানুষ তুলেছে নানা প্রশ্ন।

 

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম বলেন, জুয়া খেলা হচ্ছে শুনেছি এবং অভিযান করে জুয়া বন্ধু করা হয়েছে।

এ বিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অফিসে গিয়ে না পাওয়া গেলে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি ফোনকল রিসিভ করেন নাই।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই চলছে দৌলতপুরে মাজারের পাশে জুয়া মাদক বললেন নান্টু মেম্বার

আপডেট সময় : ০৯:৩৫:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

 

কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার বৈরাগীরচর এলাকার পদ্মাপাড়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে হযরত ভাদু শাহ্ বাবা ও হযরত গোপাল শাহ্ এর ৮৫ তম বাৎসরিক ওরশ মোবারক অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সোমবার (২২ শে এপ্রিল) এপ্রিল ওরশ মোবারকের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়।

মাজারের ভিতরের পরিবেশ ঠিক থাকলেও।  রাত নামতেই মাজার শরীফের বাহিরে জমে উঠে বিভিন্ন রকম জুয়া ও মাদকের আসর যার নেতৃত্ব দিচ্ছে নান্টু মেম্বার ও হেদায়েত মোল্লা ।

এ বিষয়ে নাম পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বৈরাগীরচর এলাকার পদ্মাপাড়ের একাধিক ব্যক্তি বলেন,  মাজারকে ব্যবহার করে স্থানীয় কেডার হেদায়েত মোল্লা ও ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নান্টুর নেতৃত্বে বসেছে ১ হাজেরর বেশি স্টল  সে সাথে বসেছে মাদক ও জুয়ার আসর। এখানে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে  উঠতি বয়সের ছেলে এসে মাদক ও জুয়ার আসরে সর্বস্বান্ত হয়ে বাড়ি ফিরছে। আমরা শুনেছি হেদায়েত ও নান্টু মেম্বার বলছে প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই নাকি চালাচ্ছে এই মাদক ও জুয়ার আসর।

ঘটনার সততা অনুসন্ধানে গেলে, দেখা যায় মেলা জুড়ে প্রায় ৫০ টি স্থানে বসেছে জুয়ার আসর ও শতাধিক স্থানে বসেছে মাদক ক্রয় বিক্রয় ও সেবনের আসর।

এ বিষয়ে  ওরশ উদযাপন কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক  নান্টু মেম্বারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,  দুর থেকে অনেক কিছু বলা যায় কাছে এসে দেখেন মেলায় কোন জুয়া নাই আর যেখানে  সাধুর মেলা হয় সেখানে মাদক গাঁজা চলেনা এমন স্থান দেখাতে হবে কিন্তু আপনাদের । এ সময় তিনি আর বলেন আমি প্রশাসনের সকলকে ম্যানেজ করেই মেলা চালাচ্ছি যা পারেন দিখেন গা।

এমন খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে দৌলতপুর থানা পুলিশ অভিযান চালায়। অভিযান শেষে থানায় চলে আসলে আবার শুরু হচ্ছে জুয়া ও মাদকের আসর। এমন অভিযান নিয়ে সাধারন মানুষ তুলেছে নানা প্রশ্ন।

 

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম বলেন, জুয়া খেলা হচ্ছে শুনেছি এবং অভিযান করে জুয়া বন্ধু করা হয়েছে।

এ বিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অফিসে গিয়ে না পাওয়া গেলে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি ফোনকল রিসিভ করেন নাই।

শেয়ার করুন