ঢাকা ০৯:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ

প্রকৃত গরীবের হকের ঘর মেরে, ঘর পেয়েছে শাসক তৃনমূল দলের নেতা ও কর্মীরা উত্তাল মগরাহাট পশ্চিম।। 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৩৬:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ জানুয়ারী ২০২৩ ১২৩ বার পড়া হয়েছে

কলকাতা থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।।

পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ ভুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে প্রকৃত গরীব লোকদের ঘর পাওয়া থেকে বঞ্চিত করে তাদের হকের ঘর বাতিল করে নিজের ছেলেদের নামে করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ প্রদর্শন মগরাহাট পশ্চিমে। এদিন মগরাহাট পশ্চিমের উস্তিতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে ভারতের বামফ্রন্টের নেতা ও কর্মীরা। তাদের দাবি কেন্দ্রীয় সরকার ও পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া গরীব লোকদের ঘর পাওয়ার কথা ছিল প্রকৃত গ্রাহকদের। কিন্তু সেই নাম থেকে বাদ দিয়ে মগরাহাট পশ্চিমের উস্হি অঞ্চলে বর্তমান শাসক দলের নেতা ও কর্মীদের ছেলের নাম ঢুকিয়ে দেন নেতা ও কর্মীরা। যায় ফলে বঞ্চিত হতে চলেছে প্রকৃত অর্থে ঘর পাওনাদারদের। এদিন নাজরা ও দেউলা অঞ্চলে এমন একটি পাওনাদার মানুষ রহমান মোল্লা অভিযোগ করেন। তার সাথে অভিযোগ করেন বরজাহান মোল্লা এমন অভিযোগ করেন। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উস্হি অঞ্চলে র সাবেক উপপ্রধান বগো মোল্লার দিকে। তারা মিডিয়ার সামনে বলেন তাদের হকের ঘর থেকে বঞ্চিত করে নিজের ছেলেদের নামে ঘর ঢুকিয়ে দেন। তবে বগো মোল্লা এই অভিযোগ অস্বীকার করেন। তবে এই ঘটনার পর রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়েছে মগরাহাট পশ্চিমের তৃনমূল দলের অভ্যন্তরে।

এই ঘটনার পর হকের ঘর ফিরিয়ে দেবার দাবি করেন মগরাহাট পশ্চিমের তৃনমূল দলের অন্যতম নেতা ও আইনজীবী মিকাইল মোল্লা। তবে এই ঘটনার পর মগরাহাট পশ্চিমের তৃনমূল দলের যুব সভাপতি ইমরান মোল্লা র এবং মগরাহাট পশ্চিমের তৃনমূল দলের অন্যতম নেতা ও বিধায়ক গিয়াসউদ্দিন মোল্লা র কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি। তবে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

প্রকৃত গরীবের হকের ঘর মেরে, ঘর পেয়েছে শাসক তৃনমূল দলের নেতা ও কর্মীরা উত্তাল মগরাহাট পশ্চিম।। 

আপডেট সময় : ১০:৩৬:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ জানুয়ারী ২০২৩

কলকাতা থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।।

পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ ভুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে প্রকৃত গরীব লোকদের ঘর পাওয়া থেকে বঞ্চিত করে তাদের হকের ঘর বাতিল করে নিজের ছেলেদের নামে করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ প্রদর্শন মগরাহাট পশ্চিমে। এদিন মগরাহাট পশ্চিমের উস্তিতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে ভারতের বামফ্রন্টের নেতা ও কর্মীরা। তাদের দাবি কেন্দ্রীয় সরকার ও পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া গরীব লোকদের ঘর পাওয়ার কথা ছিল প্রকৃত গ্রাহকদের। কিন্তু সেই নাম থেকে বাদ দিয়ে মগরাহাট পশ্চিমের উস্হি অঞ্চলে বর্তমান শাসক দলের নেতা ও কর্মীদের ছেলের নাম ঢুকিয়ে দেন নেতা ও কর্মীরা। যায় ফলে বঞ্চিত হতে চলেছে প্রকৃত অর্থে ঘর পাওনাদারদের। এদিন নাজরা ও দেউলা অঞ্চলে এমন একটি পাওনাদার মানুষ রহমান মোল্লা অভিযোগ করেন। তার সাথে অভিযোগ করেন বরজাহান মোল্লা এমন অভিযোগ করেন। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উস্হি অঞ্চলে র সাবেক উপপ্রধান বগো মোল্লার দিকে। তারা মিডিয়ার সামনে বলেন তাদের হকের ঘর থেকে বঞ্চিত করে নিজের ছেলেদের নামে ঘর ঢুকিয়ে দেন। তবে বগো মোল্লা এই অভিযোগ অস্বীকার করেন। তবে এই ঘটনার পর রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়েছে মগরাহাট পশ্চিমের তৃনমূল দলের অভ্যন্তরে।

এই ঘটনার পর হকের ঘর ফিরিয়ে দেবার দাবি করেন মগরাহাট পশ্চিমের তৃনমূল দলের অন্যতম নেতা ও আইনজীবী মিকাইল মোল্লা। তবে এই ঘটনার পর মগরাহাট পশ্চিমের তৃনমূল দলের যুব সভাপতি ইমরান মোল্লা র এবং মগরাহাট পশ্চিমের তৃনমূল দলের অন্যতম নেতা ও বিধায়ক গিয়াসউদ্দিন মোল্লা র কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি। তবে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।।

শেয়ার করুন