ঢাকা ১১:৩২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
দৌলতপুরে সেফটিক ট্যাঙ্কের কাজে নেমে মাছ ব্যবসায়ী ও কৃষকের মৃত্যু ভূরুঙ্গামারীতে নিত্যপণ্যের বাজারে আগুন: গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক এমপির নির্দেশে চনপাড়া মাদকবিরোধী মিছিল অনুষ্ঠিত বগুড়ায় শুরু হলো ৭ দিনব্যাপী বৃক্ষ মেলা! তানোরে অটো গাড়ি চুরি করতে এসে মোটরসাইকেল রেখে পালালো চোর যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন : প্রধানমন্ত্রী বগুড়ায় ড. হাসান মাহমুদ, কারও কারণে আ’লীগে কালো দাগ পড়লে তাকে ছেঁটে দিতে হবে, কোটা আন্দোলনের নামে ভোগান্তি হলে কঠোর ব্যবস্থা ব্যবসায়ীর মৃত্যু হলে পরিবারের দায়িত্ব নেবেন শাকিব পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় ৩ নারীসহ আহত-৪

দৌলতপুরে একাধিক মামলার আসামি মাসুদের রমরমা মাদক ব্যবসা 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:২৯:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ নভেম্বর ২০২২ ৫২ বার পড়া হয়েছে

দৌলতপুর প্রতিনিধিঃ দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের পূর্ব বাহিরমাদীতে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে একাধিক মামলার আসামি ও চিহ্নিত মাদক ও অস্ত্র ব্যবসয়ী মো মাসুদ রানা ওরফে ফেন্সি মাসুদের (৩১) রমরমা মাদক ব্যবসা। একাধিকবার প্রশাসনের হাতে গ্রেপ্তারের পরও মাসুদের মাদক বিক্রির দৌরাত্ম যেন কিছুতেই কমানো যাচ্ছে না বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

 

চলমান মাদক বিরোধী অভিযানকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে ফিলিপনগর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের পূর্ব বাহিরমাদী এলাকার মাসুদ রানা ও তার সহযোগীসহ বেশ কিছু মাদক কারবারী দিনে দুপুরে অবাধে অবৈধ মাদক বিক্রি করছে। যা যুব সমাজকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে এই মাদক ব্যবসায়ীরা।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, যেখানে মাদক ব্যবসার কারনে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তে একের পর এক ক্রসফায়ের মতো ঘটনা সংঘটিত হচ্ছে এবং চলমান এ সকল অভিযানের কারনে অনেক এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা প্রশাসনের ভয়ে আত্মগোপনে রয়েছে। কিন্তু পূর্ব বাহিরমাদী এলাকার মাদক ব্যবসায়ী মাসুদ চলমান অভিযানকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বীরদর্পে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

 

সূত্রে জানা যায়, পূর্ব বাহিরমাদী এলাকার রমরমা মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ করছে মাদকের ডিলার মাসুদের একাধিক সহযোগী। তার মধ্যে অন্যতম মো: লাবু, মো: মধু।

 

তারা একাধিকবার পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হলেও জামিনে বেরিয়ে এসে ফের আবারও মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পরেছে।

 

মাসুদ রানা পূর্ব বাহিরমাদী এলাকার বড় ফেন্সিডিলের ডিলার হিসেবে পরিচিত। তার এই রমরমা ফেন্সিডিলের ব্যবসায় একাধিক ব্যক্তি জড়িত রয়েছে বলে জানা গেছে। সেখান কার মাদক ব্যবসায়ীরা ওই এলাকাসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে মাদক সরবরাহ করছে। মাসুদ রানা দৌলতপুরে বিভিন্ন স্থানে মাদকের সেল্টার দাতা হিসেবে চিহ্নিত এমনটাই অভিযোগ এলাকাবাসীর।

 

মাদক ব্যবসা করেই মাসুদ রানা লক্ষ লক্ষ টাকার মালিক হয়ে গেছেন। পুলিশ একাধিকবার গ্রেপ্তার করলেও টাকার বিনিময়ে ছাড়া পেয়ে আবার সেই মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পরে। বর্তমান যুবসমাজকে রক্ষা করার জন্য কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ সুপার মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন একলাবাসী।

 

৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার ছান্নান সরদার বলেন, মাসুদের বিরুদ্ধে মাদকসহ একাধিক মামলা রয়েছে। প্রশাসন সব কিছু জেনেও অজ্ঞাত কারণ বশত কোন ব্যবস্থা গ্রহন করছে না। আমরা সাধারণ অসহায় মানুষ ভাই। যারা মাদক ব্যবসা করছে তারা অনেক শক্তিশালী। কিন্তু এভাবে চলতে থাকলে আমাদের ছেলে-মেয়েদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার হয়ে যাবে। তাই তিনি স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

 

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। মাদক ব্যবসায়ী যত শক্তিশালিই হোক না কেনো তাকে ছাড় দেওয়া হবে না। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান ওসি।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

দৌলতপুরে একাধিক মামলার আসামি মাসুদের রমরমা মাদক ব্যবসা 

আপডেট সময় : ১১:২৯:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ নভেম্বর ২০২২

দৌলতপুর প্রতিনিধিঃ দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের পূর্ব বাহিরমাদীতে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে একাধিক মামলার আসামি ও চিহ্নিত মাদক ও অস্ত্র ব্যবসয়ী মো মাসুদ রানা ওরফে ফেন্সি মাসুদের (৩১) রমরমা মাদক ব্যবসা। একাধিকবার প্রশাসনের হাতে গ্রেপ্তারের পরও মাসুদের মাদক বিক্রির দৌরাত্ম যেন কিছুতেই কমানো যাচ্ছে না বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

 

চলমান মাদক বিরোধী অভিযানকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে ফিলিপনগর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের পূর্ব বাহিরমাদী এলাকার মাসুদ রানা ও তার সহযোগীসহ বেশ কিছু মাদক কারবারী দিনে দুপুরে অবাধে অবৈধ মাদক বিক্রি করছে। যা যুব সমাজকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে এই মাদক ব্যবসায়ীরা।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, যেখানে মাদক ব্যবসার কারনে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তে একের পর এক ক্রসফায়ের মতো ঘটনা সংঘটিত হচ্ছে এবং চলমান এ সকল অভিযানের কারনে অনেক এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা প্রশাসনের ভয়ে আত্মগোপনে রয়েছে। কিন্তু পূর্ব বাহিরমাদী এলাকার মাদক ব্যবসায়ী মাসুদ চলমান অভিযানকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বীরদর্পে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

 

সূত্রে জানা যায়, পূর্ব বাহিরমাদী এলাকার রমরমা মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ করছে মাদকের ডিলার মাসুদের একাধিক সহযোগী। তার মধ্যে অন্যতম মো: লাবু, মো: মধু।

 

তারা একাধিকবার পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হলেও জামিনে বেরিয়ে এসে ফের আবারও মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পরেছে।

 

মাসুদ রানা পূর্ব বাহিরমাদী এলাকার বড় ফেন্সিডিলের ডিলার হিসেবে পরিচিত। তার এই রমরমা ফেন্সিডিলের ব্যবসায় একাধিক ব্যক্তি জড়িত রয়েছে বলে জানা গেছে। সেখান কার মাদক ব্যবসায়ীরা ওই এলাকাসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে মাদক সরবরাহ করছে। মাসুদ রানা দৌলতপুরে বিভিন্ন স্থানে মাদকের সেল্টার দাতা হিসেবে চিহ্নিত এমনটাই অভিযোগ এলাকাবাসীর।

 

মাদক ব্যবসা করেই মাসুদ রানা লক্ষ লক্ষ টাকার মালিক হয়ে গেছেন। পুলিশ একাধিকবার গ্রেপ্তার করলেও টাকার বিনিময়ে ছাড়া পেয়ে আবার সেই মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পরে। বর্তমান যুবসমাজকে রক্ষা করার জন্য কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ সুপার মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন একলাবাসী।

 

৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার ছান্নান সরদার বলেন, মাসুদের বিরুদ্ধে মাদকসহ একাধিক মামলা রয়েছে। প্রশাসন সব কিছু জেনেও অজ্ঞাত কারণ বশত কোন ব্যবস্থা গ্রহন করছে না। আমরা সাধারণ অসহায় মানুষ ভাই। যারা মাদক ব্যবসা করছে তারা অনেক শক্তিশালী। কিন্তু এভাবে চলতে থাকলে আমাদের ছেলে-মেয়েদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার হয়ে যাবে। তাই তিনি স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

 

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। মাদক ব্যবসায়ী যত শক্তিশালিই হোক না কেনো তাকে ছাড় দেওয়া হবে না। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান ওসি।

শেয়ার করুন