ঢাকা ০৮:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
লালপুরে পদ্মার চরে মিলল ৪ রাসেল ভাইপার খোকসা উসাসের পক্ষে থেকে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে ফুলের শুভেচ্ছা। বগুড়ায় নারী চিকিৎসক মাত্রাতিরিক্ত ঘুমের ট্যালেট সেবনে আত্মহত্যা তিস্তা সেতুর মাঝখানে ফাটল আতঙ্কে পথযাত্রীরা। ঈমান রক্ষার দোয়া। হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী। ভারতের সঙ্গে সম্পর্ককে বিশেষ গুরুত্ব দেয় বাংলাদেশ: শেখ হাসিনা আমতলীতে বৌ-ভাতের অনুষ্ঠানে আসার পথে ব্রীজ ভেঙ্গে ৯জন নিহত ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক আরও গভীর করতে ৭টি নতুন সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের অভিযানে ৫ মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার –মাদক উদ্ধার ! দিল্লী সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

তীব্র তাপদাহ থেকে মুক্তি পেতে আমতলীতে সালাতুল ইসতিসকার নামাজ আদায়

সাইফুল্লাহ নাসির,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৯:১৩:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪ ৬৩ বার পড়া হয়েছে

গ্রীষ্মের দাবদাহে পুড়ছে বরগুনার আমতলী।প্রখর রোদ ও তীব্র গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন।বৃষ্টি না হওয়ায় নদী-নালা,খাল-বিল শুকিয়ে যাচ্ছে। পানির অভাবে ফসলের খেত ফেটে চৌচির।একদিকে পানির জন্য কৃষকের মাঝে হাহাকার অপরদিকে খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের জীবন হয়ে উঠছে ওষ্ঠাগত। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য মহান আল্লাহর নিকট দুই রাকাত সালাতুল ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছেন আমতলীর বিভিন্ন বয়সের ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে পৌর শহরের সরকারি কলেজ মাঠে কয়েক শত ধর্মপ্রাণ মুসল্লি এ বিশেষ নামাজে অংশগ্রহণ করেন।

নামাজে ইমামমতি ও মোনাজাত পরিচালনা করেন সরকারি কলেজ মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা মোঃ সাইদুর রহমান ফারুক। এবং খোৎবা পাঠ করেন উপজেলা পরিষদ মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা মোঃ আমিরুল ইসলাম।

মোনাজাতে অংশ নেওয়া মুসল্লিরা কান্নায় ভেঙে পড়ে মহান আল্লাহর দরবারে ক্ষমা প্রার্থনা করে এই অসহনীয় পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের জন্য আল্লাহর দরবারে সাহায্য প্রার্থনা করেন।ইসতিসকার নামাজের নিয়মানুসারে দোয়া করার সময় মুসল্লিরা পাঞ্জাবি ও টুপি উল্টো করে পরেন।

ষাটোর্ধ কয়েকজন মুসুল্লি বলেন, আমাদের জীবনে এমন গরম দেখিনি। এই তীব্র গরম থেকে বাঁচতে আজ বিশেষ নামাজ আদায় করলাম। আল্লাহ যেন বৃষ্টি দেন, পরিবেশটা যেন ঠান্ডা হয়।

নামাজে অংশ গ্রহণ করা তরুন,যুবক ও শিক্ষার্থীদের সাথে আলাপকালে তারা বলেন,সারা দেশে তীব্র দাবদাহ চলছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করলাম এবং ইসতিসকার নামাজ আদায় করলাম। আল্লাহ যেন তার জমিনে রহমতের বৃষ্টি বর্ষণ করেন।

নামাজে উপস্তিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলম,পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ মতিয়ার রহমান সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিগণ।এ সময় তারা বলেন,তীব্র খড়ার কারণে দাবদাহ সৃষ্টি হয়েছে।এতে পরিবেশের ওপর প্রভাব পড়েছে। শুধু তাই নয়,দাবদাহের কারণে জন জীবন বিপর্যস্ত হওয়ায় সারা দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।এর থেকে পরিত্রাণের জন্য আমরা বিশেষ নামাজ আদায় করলাম।

প্রসঙ্গত,গতকাল ১২.১০ মিনিটে আমতলীর ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.১০ ডিগ্রি ছিল।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

তীব্র তাপদাহ থেকে মুক্তি পেতে আমতলীতে সালাতুল ইসতিসকার নামাজ আদায়

আপডেট সময় : ০৯:১৩:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪

গ্রীষ্মের দাবদাহে পুড়ছে বরগুনার আমতলী।প্রখর রোদ ও তীব্র গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন।বৃষ্টি না হওয়ায় নদী-নালা,খাল-বিল শুকিয়ে যাচ্ছে। পানির অভাবে ফসলের খেত ফেটে চৌচির।একদিকে পানির জন্য কৃষকের মাঝে হাহাকার অপরদিকে খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের জীবন হয়ে উঠছে ওষ্ঠাগত। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য মহান আল্লাহর নিকট দুই রাকাত সালাতুল ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছেন আমতলীর বিভিন্ন বয়সের ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে পৌর শহরের সরকারি কলেজ মাঠে কয়েক শত ধর্মপ্রাণ মুসল্লি এ বিশেষ নামাজে অংশগ্রহণ করেন।

নামাজে ইমামমতি ও মোনাজাত পরিচালনা করেন সরকারি কলেজ মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা মোঃ সাইদুর রহমান ফারুক। এবং খোৎবা পাঠ করেন উপজেলা পরিষদ মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা মোঃ আমিরুল ইসলাম।

মোনাজাতে অংশ নেওয়া মুসল্লিরা কান্নায় ভেঙে পড়ে মহান আল্লাহর দরবারে ক্ষমা প্রার্থনা করে এই অসহনীয় পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের জন্য আল্লাহর দরবারে সাহায্য প্রার্থনা করেন।ইসতিসকার নামাজের নিয়মানুসারে দোয়া করার সময় মুসল্লিরা পাঞ্জাবি ও টুপি উল্টো করে পরেন।

ষাটোর্ধ কয়েকজন মুসুল্লি বলেন, আমাদের জীবনে এমন গরম দেখিনি। এই তীব্র গরম থেকে বাঁচতে আজ বিশেষ নামাজ আদায় করলাম। আল্লাহ যেন বৃষ্টি দেন, পরিবেশটা যেন ঠান্ডা হয়।

নামাজে অংশ গ্রহণ করা তরুন,যুবক ও শিক্ষার্থীদের সাথে আলাপকালে তারা বলেন,সারা দেশে তীব্র দাবদাহ চলছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করলাম এবং ইসতিসকার নামাজ আদায় করলাম। আল্লাহ যেন তার জমিনে রহমতের বৃষ্টি বর্ষণ করেন।

নামাজে উপস্তিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলম,পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ মতিয়ার রহমান সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিগণ।এ সময় তারা বলেন,তীব্র খড়ার কারণে দাবদাহ সৃষ্টি হয়েছে।এতে পরিবেশের ওপর প্রভাব পড়েছে। শুধু তাই নয়,দাবদাহের কারণে জন জীবন বিপর্যস্ত হওয়ায় সারা দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।এর থেকে পরিত্রাণের জন্য আমরা বিশেষ নামাজ আদায় করলাম।

প্রসঙ্গত,গতকাল ১২.১০ মিনিটে আমতলীর ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.১০ ডিগ্রি ছিল।

শেয়ার করুন