ঢাকা ১০:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ

জন দুর্ভোগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৩২:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর ২০২২ ৪৯ বার পড়া হয়েছে

কামরুল ইসলাম চট্টগ্রাম –

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের স্কুল সড়কটি একেবারেই চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে অথচ জনপ্রতিনিধিরা নিরব জনপ্রতিনিধি ও সরকার দলের নেতারা নিজেদের নিজেদের আকের গোছাতে ব্যস্ত । সড়কের বিভিন্ন অংশে বড় বড় গর্তের কারণে সড়কটির বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে এই বিষয়ে জনপ্রতিনিধি কোন ভূমিকা নেই যার কারণে স্থানীয় এলাকাবাসী,যান চলাচল ও শিক্ষার্থীরা চরম বিপাকে পড়েছে।

 

এই সড়ক টি সরেজমিনে পরিদর্শনে যায় লোহাগাড়া প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক সাংবাদিক রাইহান সিকদার তিনি বলেন আমি গিয়ে দেখতে পায় লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের স্কুল সড়কটি অত্যন্ত জনগুরুত্বপুর্ণ সড়ক হিসেবে বেশ পরিচিত। এ সড়কটি দিয়ে দক্ষিণ সাতকানিয়া গোলামবারী সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, আমিরাবাদ সুফিয়া আলিয়া ফাজিল মাদ্রাসা,আমিরাবাদ দায়েমিয়া হেফজখানা ও এতিমখানা, আমিরাবাদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, আমিরাবাদ জনকল্যাণ বালক উচ্চ বিদ্যালয়,আমিরাবাদ জনকল্যাণ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়সহ বেশ কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে থাকে। বিশেষ করে এবারের এসএসসি পরীক্ষার অন্যতম কেন্দ্র দক্ষিণ সাতকানিয়া গোলামবারী সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়টি।যেখানে পরীক্ষার দিনে সড়ক দিয়ে যাতায়াত করার সময় টমটম কিংবা সিএনজি যোগে যাতায়াত করলে গর্তের পানি ছিটকে পড়ে কাপড় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। অনেক সময় গাড়ি গর্তে ঢুকে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সামান্য বৃষ্টির পানি হলেই গর্ত গুলো ডুবে যাচ্ছে আর এই কারণে যেই কোন সময় মারাত্মক দূর্ঘটনা ঘটতে পারে ।

 

এলাকার বাসিন্দা, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও আমিরাবাদ ইউনিয়নের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মতিউল্লহ মহজন পাড়া, খলু হাজ্বীর পাড়া, খন্দকার পাড়া সমাজ কমিটির সভাপতি মনির উদ্দিন সওদাগর বলেন স্কুল সড়কটিতে বড় বড় গর্তের কারণে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে চরম বিপাকে ধারণ করছে। ছেলেমেয়েরা এবং আমরা এলাকার মানুষ সড়কের বেহাল দশার কারণে যাতায়াত করতে রীতিমত হিমশিম খেতে হচ্ছে। সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের কাছে সড়কটি দ্রুত সংস্কারের জন্য জোর দাবী জানাচ্ছি।

 

দক্ষিণ সাতকানিয়া গোলামবারী সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাস্টার সমশুল আলম জানান, স্কুল সড়কটি অনেক জনগুরুত্বপুর্ণ সড়ক। এ সড়ক দিয়ে আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে থাকে। তবে সড়কটিতে বিভিন্ন অংশে বড় বড় গর্তে ডুবে যাওয়ার কারণে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। আমরা অতি কষ্টে সড়কটা দিয়ে যাতায়াত করে যাচ্ছি অথচ যা কষ্ট যাই আমাদের শরীলের উপর দিয়ে যায় আর এই ছাড়া আমাদের যাতায়াতের বিকল্প ব্যবস্তা ও নেই ।

 

এক শিক্ষার্থী জানান, সড়ক দিয়ে যাতায়াত কালে সড়কটির বড় বড় গর্তের কারণে চলাচলে গর্তের পানি আমাদের গায়ে ছিটকে পড়ে কাপড় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের কাছে সড়কটি সংস্কারের জন্য দাবী জানাচ্ছি।

 

লোহাগাড়া উপজেলা প্রকৌশলী ইফরাত বিন মুনীর সাথে সাংবাদিক রাইহান সিকদার কথা বললে রাইহান সিকদার কে নাকি মুনীর বলেন দক্ষিণ সাতকানিয়া গোলামবারী মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় সড়ক (প্রকাশ স্কুল রোড) এর বেহাল দশার বিষয়ে আমরা অবগত রয়েছি। ইতিমধ্যে এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। জনসাধারণ ও শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে চলমান প্রকল্পের মাধ্যমে সড়কটি দ্রুত সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান(ভারপ্রাপ্ত) এম ইব্রাহীম কবিরের সাথে ও সাংবাদিক রাইহান সিকদার কথা বললে ইব্রাহিম কবির বলেন , স্কূল রোড সংস্কারের জন্য তালিকা করা হয়েছে। শীঘ্রই বরাদ্দ পেলে সড়কটি সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

জন দুর্ভোগ

আপডেট সময় : ০২:৩২:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর ২০২২

কামরুল ইসলাম চট্টগ্রাম –

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের স্কুল সড়কটি একেবারেই চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে অথচ জনপ্রতিনিধিরা নিরব জনপ্রতিনিধি ও সরকার দলের নেতারা নিজেদের নিজেদের আকের গোছাতে ব্যস্ত । সড়কের বিভিন্ন অংশে বড় বড় গর্তের কারণে সড়কটির বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে এই বিষয়ে জনপ্রতিনিধি কোন ভূমিকা নেই যার কারণে স্থানীয় এলাকাবাসী,যান চলাচল ও শিক্ষার্থীরা চরম বিপাকে পড়েছে।

 

এই সড়ক টি সরেজমিনে পরিদর্শনে যায় লোহাগাড়া প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক সাংবাদিক রাইহান সিকদার তিনি বলেন আমি গিয়ে দেখতে পায় লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের স্কুল সড়কটি অত্যন্ত জনগুরুত্বপুর্ণ সড়ক হিসেবে বেশ পরিচিত। এ সড়কটি দিয়ে দক্ষিণ সাতকানিয়া গোলামবারী সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, আমিরাবাদ সুফিয়া আলিয়া ফাজিল মাদ্রাসা,আমিরাবাদ দায়েমিয়া হেফজখানা ও এতিমখানা, আমিরাবাদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, আমিরাবাদ জনকল্যাণ বালক উচ্চ বিদ্যালয়,আমিরাবাদ জনকল্যাণ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়সহ বেশ কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে থাকে। বিশেষ করে এবারের এসএসসি পরীক্ষার অন্যতম কেন্দ্র দক্ষিণ সাতকানিয়া গোলামবারী সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়টি।যেখানে পরীক্ষার দিনে সড়ক দিয়ে যাতায়াত করার সময় টমটম কিংবা সিএনজি যোগে যাতায়াত করলে গর্তের পানি ছিটকে পড়ে কাপড় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। অনেক সময় গাড়ি গর্তে ঢুকে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সামান্য বৃষ্টির পানি হলেই গর্ত গুলো ডুবে যাচ্ছে আর এই কারণে যেই কোন সময় মারাত্মক দূর্ঘটনা ঘটতে পারে ।

 

এলাকার বাসিন্দা, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও আমিরাবাদ ইউনিয়নের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মতিউল্লহ মহজন পাড়া, খলু হাজ্বীর পাড়া, খন্দকার পাড়া সমাজ কমিটির সভাপতি মনির উদ্দিন সওদাগর বলেন স্কুল সড়কটিতে বড় বড় গর্তের কারণে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে চরম বিপাকে ধারণ করছে। ছেলেমেয়েরা এবং আমরা এলাকার মানুষ সড়কের বেহাল দশার কারণে যাতায়াত করতে রীতিমত হিমশিম খেতে হচ্ছে। সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের কাছে সড়কটি দ্রুত সংস্কারের জন্য জোর দাবী জানাচ্ছি।

 

দক্ষিণ সাতকানিয়া গোলামবারী সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাস্টার সমশুল আলম জানান, স্কুল সড়কটি অনেক জনগুরুত্বপুর্ণ সড়ক। এ সড়ক দিয়ে আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে থাকে। তবে সড়কটিতে বিভিন্ন অংশে বড় বড় গর্তে ডুবে যাওয়ার কারণে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। আমরা অতি কষ্টে সড়কটা দিয়ে যাতায়াত করে যাচ্ছি অথচ যা কষ্ট যাই আমাদের শরীলের উপর দিয়ে যায় আর এই ছাড়া আমাদের যাতায়াতের বিকল্প ব্যবস্তা ও নেই ।

 

এক শিক্ষার্থী জানান, সড়ক দিয়ে যাতায়াত কালে সড়কটির বড় বড় গর্তের কারণে চলাচলে গর্তের পানি আমাদের গায়ে ছিটকে পড়ে কাপড় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের কাছে সড়কটি সংস্কারের জন্য দাবী জানাচ্ছি।

 

লোহাগাড়া উপজেলা প্রকৌশলী ইফরাত বিন মুনীর সাথে সাংবাদিক রাইহান সিকদার কথা বললে রাইহান সিকদার কে নাকি মুনীর বলেন দক্ষিণ সাতকানিয়া গোলামবারী মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় সড়ক (প্রকাশ স্কুল রোড) এর বেহাল দশার বিষয়ে আমরা অবগত রয়েছি। ইতিমধ্যে এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। জনসাধারণ ও শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে চলমান প্রকল্পের মাধ্যমে সড়কটি দ্রুত সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান(ভারপ্রাপ্ত) এম ইব্রাহীম কবিরের সাথে ও সাংবাদিক রাইহান সিকদার কথা বললে ইব্রাহিম কবির বলেন , স্কূল রোড সংস্কারের জন্য তালিকা করা হয়েছে। শীঘ্রই বরাদ্দ পেলে সড়কটি সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন