ঢাকা ০৯:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ

কুলাউড়ায় শোরুম থেকে সিএনজি ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৪৯:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২২ ৪৯ বার পড়া হয়েছে

মো: রেজাউল ইসলাম শাফি, কুলাউড়া(মৌলভীবাজার) প্রতিনিধিঃ

কুলাউড়া উপজেলায় দেশ অটোমোবাইল সিএনজি বিক্রয় কেন্দ্র (শোরুম) থেকে ১টি সিএনজি ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ করেন প্রতিষ্ঠানটি। অভিযোগে বলা হয়, সিএনজিটি কিস্তিতে নেয় খয়রুল ইসলাম নেয়ার পর ঠিক মত কিস্তি পরিশোধ না করলে আমরা গাড়ীটি জব্দ করি। পরবর্তিতে জানতে পারি কিস্তি পরিশোধ না করে অন্য এক ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে বিদেশ চলে যায়। অতচ শো-রুম কর্তৃপক্ষ ২লক্ষ ৫৫ হাজার টাকা পাওনা থাকায় বাধ্য হয়ে জব্দ করা হয় সিএনজিটি।

 

এ ঘটনার জেরে শনিবার (১৬ অক্টোবর) দুপুরের দিকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে কোন কিছু না বুঝেই ওই শোরুম কর্মচারীদের ভয় দেখিয়ে ১টি সিএনজি নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ এনে উল্লেখ করেন, স্থানীয় পরিবহন শ্রমিকনেতা আলমাছ আহমদের নেতৃত্বে সিএনজিটি ছিনিয়ে নেয়া হয়। এছাড়াও শোরুমটির সাঁটার বন্ধ করে চলে যায়।

 

দেশ অটোমোবাইল কুলাউড়া শো-রুমের সত্তাধিকারী সুমন সিনহা জানান, কিস্তি পরিশোধ না করায় সিএনজিটি জব্দ করি। কর্মচারীদের ভয় দেখিয়ে জব্দকৃত সিএনজিটি ছিনিয়ে নেয়া হয়। সিসি টিভি ফুটেজ থেকে ঘটনাকারী আলমাছ আহমদসহ কয়েকজনকে সনাক্ত করা গেলেও বাকিদের সনাক্ত করা যায়নি। এবিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

কুলাউড়া পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমাছ আহমদ এবিষয়ে জানায় নিয়মিত কিস্তি পরিশোধ করার পরেও সিএনজিটি জব্দ করা হয়। শোরুমের ম্যানেজারের মাধ্যমে নিজেরা তালা মেরে উল্টো হুমকি দিচ্ছে। কিস্তি পরিশোধ করার পরও গাড়ীর কাগজ না করে দেয়ার অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। সঠিক বিচার না পেলে যেকোন আন্দোলন বা আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হবো।

 

কুলাউড়া থানার এসআই মোঃ হারুনুর রশীদ বলেন, ঘটনাস্থল পরির্দশনে গিয়ে তালাবদ্ধ শোরুম দেখতে পাই। সেখানে কর্তৃপক্ষ ছাড়া আর কাওকে না পাওয়ায় তালা খোলে কার্যক্রম চালানোর জন্য বলি। তবে এখনও কারো লিখিত অভিযোগ পাইনি। পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কুলাউড়ায় শোরুম থেকে সিএনজি ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ!

আপডেট সময় : ১১:৪৯:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২২

মো: রেজাউল ইসলাম শাফি, কুলাউড়া(মৌলভীবাজার) প্রতিনিধিঃ

কুলাউড়া উপজেলায় দেশ অটোমোবাইল সিএনজি বিক্রয় কেন্দ্র (শোরুম) থেকে ১টি সিএনজি ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ করেন প্রতিষ্ঠানটি। অভিযোগে বলা হয়, সিএনজিটি কিস্তিতে নেয় খয়রুল ইসলাম নেয়ার পর ঠিক মত কিস্তি পরিশোধ না করলে আমরা গাড়ীটি জব্দ করি। পরবর্তিতে জানতে পারি কিস্তি পরিশোধ না করে অন্য এক ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে বিদেশ চলে যায়। অতচ শো-রুম কর্তৃপক্ষ ২লক্ষ ৫৫ হাজার টাকা পাওনা থাকায় বাধ্য হয়ে জব্দ করা হয় সিএনজিটি।

 

এ ঘটনার জেরে শনিবার (১৬ অক্টোবর) দুপুরের দিকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে কোন কিছু না বুঝেই ওই শোরুম কর্মচারীদের ভয় দেখিয়ে ১টি সিএনজি নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ এনে উল্লেখ করেন, স্থানীয় পরিবহন শ্রমিকনেতা আলমাছ আহমদের নেতৃত্বে সিএনজিটি ছিনিয়ে নেয়া হয়। এছাড়াও শোরুমটির সাঁটার বন্ধ করে চলে যায়।

 

দেশ অটোমোবাইল কুলাউড়া শো-রুমের সত্তাধিকারী সুমন সিনহা জানান, কিস্তি পরিশোধ না করায় সিএনজিটি জব্দ করি। কর্মচারীদের ভয় দেখিয়ে জব্দকৃত সিএনজিটি ছিনিয়ে নেয়া হয়। সিসি টিভি ফুটেজ থেকে ঘটনাকারী আলমাছ আহমদসহ কয়েকজনকে সনাক্ত করা গেলেও বাকিদের সনাক্ত করা যায়নি। এবিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

কুলাউড়া পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমাছ আহমদ এবিষয়ে জানায় নিয়মিত কিস্তি পরিশোধ করার পরেও সিএনজিটি জব্দ করা হয়। শোরুমের ম্যানেজারের মাধ্যমে নিজেরা তালা মেরে উল্টো হুমকি দিচ্ছে। কিস্তি পরিশোধ করার পরও গাড়ীর কাগজ না করে দেয়ার অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। সঠিক বিচার না পেলে যেকোন আন্দোলন বা আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হবো।

 

কুলাউড়া থানার এসআই মোঃ হারুনুর রশীদ বলেন, ঘটনাস্থল পরির্দশনে গিয়ে তালাবদ্ধ শোরুম দেখতে পাই। সেখানে কর্তৃপক্ষ ছাড়া আর কাওকে না পাওয়ায় তালা খোলে কার্যক্রম চালানোর জন্য বলি। তবে এখনও কারো লিখিত অভিযোগ পাইনি। পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন