ঢাকা ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
খোকসা উসাসের পক্ষে থেকে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে ফুলের শুভেচ্ছা। বগুড়ায় নারী চিকিৎসক মাত্রাতিরিক্ত ঘুমের ট্যালেট সেবনে আত্মহত্যা তিস্তা সেতুর মাঝখানে ফাটল আতঙ্কে পথযাত্রীরা। ঈমান রক্ষার দোয়া। হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী। ভারতের সঙ্গে সম্পর্ককে বিশেষ গুরুত্ব দেয় বাংলাদেশ: শেখ হাসিনা আমতলীতে বৌ-ভাতের অনুষ্ঠানে আসার পথে ব্রীজ ভেঙ্গে ৯জন নিহত ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক আরও গভীর করতে ৭টি নতুন সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের অভিযানে ৫ মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার –মাদক উদ্ধার ! দিল্লী সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ের স্ত্রীর মামলার আসামি পলাতক স্বামী জাহাঙ্গীর আলম গ্রেফতার ।

কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলেন ৩১ ভারতীয় জেলে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৪৭:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ অক্টোবর ২০২২ ৫৪ বার পড়া হয়েছে

মোঃ ইকরামুল হক রাজিব নিজস্ব প্রতিনিধি

বঙ্গোপসাগরে অবৈধ প্রবেশ করে মাছ ধরার অপরাধে দীর্ঘ এক মাস ছয় দিন কারাভোগ শেষে নিজ দেশে ফিরেছেন ৩১ জন ভারতীয় জেলে।

 

শনিবার (৮ অক্টোবর) আদালত এসব জেলেদের মুক্তির আদেশ দেন। পরে সকালে বাগেরহাট জেলা কারাগার থেকে এসব জেলেদের মুক্তি দেওয়া হয়।

 

বাগেরহট জেল সুপার এসএম কামরুল হুদা এবং বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোহান সরকার এর উপস্থিতিতে মুক্তি পাওয়া ভারতীয় জেলেদের খুলনাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনের প্রতিনিধি প্রভাত মুন্দা’র কাছে হস্তান্তর করা হয়।

 

পরে সড়ক পথে পুলিশ প্রহরায় তাদের মোংলায় নেওয়া হয়। মোংলা ফেরিঘাট এলাকায় থাকা ২টি ট্রলার নিয়ে বিকেলে ভারতের দক্ষিণ-চব্বিশ পরগনার উদ্দেশে রওনা হবেন তারা।

 

জেল থেকে মুক্ত হওয়া ভারতের চব্বিশ পরগনার জেলার কাগদ্বীপ থানার বাসিন্দা

অশোক বর্মা (৪৫) ও নীল চন্দ্র দাশ (৫০) বলেন, আমরা ভারতীয় জেলে, বাংলাদেশে মাছ ধরতে এসে ধরা পড়েছি। জেলের মধ্যে নিরাপদেই ছিলাম, তবে পরিবারের সাথে যোগাযোগ করতে পারিনি, এখন বাড়ী যাবো।

 

দুপুরের পর ভারতের চব্বিশ পরগনা জেলায় রওনা হন তারা। মোংলা থানার ওসি মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

 

ওসি মনিরুল আরও বলেন, গত ৩১ আগষ্ট অবৈধভাবে বাংলাদেশের জলসীমায় ঢুকে মাছ শিকার করার সময় কোস্টগার্ডের জাহাজ মনসুর আলী তাদের আটক করেন। এসময় বিপুল পরিমান সামুদ্রিক মাছসহ ‘এফ বি মা মঙ্গলচন্ডী-১ এবং মঙ্গলচন্ডী-৩’ নামে দুটি ফিশিং বোটও আটক করে তারা। পরে ১ সেপ্টেম্বর মোংলা কোস্টগার্ড তাদের নামে মোংলা থানায় মামলা করেন। এরপর ২ সেম্পেম্বর তাদের বাগেরহাট জেলহাজকে প্রেরণ করা হয়।

 

গ্রেফতার হওয়া এসব ভারতীয় জেলেরা এক মাস ছয়দিন জেলহাজতে থাকার পর শনিবার (৮ অক্টোবর) জামিনে মুক্ত হন বলেও জানান ওসি মনিরুল।

 

 

বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ জলসীমায় অনুপ্রবেশ করে মাছ ধরার সময় গত বুধবার (৩১ আগস্ট) সন্ধ্যায় কোস্টগার্ডের জাহাজ বিসিজিএস মনসুর আলী সমুদ্রের পশ্চিম আইএমবিএল থেকে ৭৭ নটিক্যাল মাইল অদূরে বাংলাদেশের জলসীমা থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় জেলেদের ব্যবহৃত ট্রলার এফভি মঙ্গল চান্দী-২৫, এফভি মঙ্গল চান্দী-৩ এবং তাতে থাকা বিভিন্ন প্রজাতির মাছ জব্দ করা হয়।

 

বৃহস্পতিবার (০১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আটক ভারতীয় জেলেদের কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের মোংলা সদর দপ্তরে আনা হয়। এরপর আটক ওই ৩১ জেলেকে শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) আদালতের মাধ্যমে বাগেরহাট কারাগারে পাঠানো হয়। তাদের বাড়ি ভারতের দক্ষিণ-চব্বিশ পরগোনা জেলার কাকদ্বীপসহ বিভিন্ন এলাকায়।

 

এর আগে তিন মাস চারদিন কারাভোগের পর গত মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) একই ঘটনায়

জামিনে মুক্ত হন ১৩৫ ভারতীয় জেলে।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলেন ৩১ ভারতীয় জেলে

আপডেট সময় : ১১:৪৭:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ অক্টোবর ২০২২

মোঃ ইকরামুল হক রাজিব নিজস্ব প্রতিনিধি

বঙ্গোপসাগরে অবৈধ প্রবেশ করে মাছ ধরার অপরাধে দীর্ঘ এক মাস ছয় দিন কারাভোগ শেষে নিজ দেশে ফিরেছেন ৩১ জন ভারতীয় জেলে।

 

শনিবার (৮ অক্টোবর) আদালত এসব জেলেদের মুক্তির আদেশ দেন। পরে সকালে বাগেরহাট জেলা কারাগার থেকে এসব জেলেদের মুক্তি দেওয়া হয়।

 

বাগেরহট জেল সুপার এসএম কামরুল হুদা এবং বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোহান সরকার এর উপস্থিতিতে মুক্তি পাওয়া ভারতীয় জেলেদের খুলনাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনের প্রতিনিধি প্রভাত মুন্দা’র কাছে হস্তান্তর করা হয়।

 

পরে সড়ক পথে পুলিশ প্রহরায় তাদের মোংলায় নেওয়া হয়। মোংলা ফেরিঘাট এলাকায় থাকা ২টি ট্রলার নিয়ে বিকেলে ভারতের দক্ষিণ-চব্বিশ পরগনার উদ্দেশে রওনা হবেন তারা।

 

জেল থেকে মুক্ত হওয়া ভারতের চব্বিশ পরগনার জেলার কাগদ্বীপ থানার বাসিন্দা

অশোক বর্মা (৪৫) ও নীল চন্দ্র দাশ (৫০) বলেন, আমরা ভারতীয় জেলে, বাংলাদেশে মাছ ধরতে এসে ধরা পড়েছি। জেলের মধ্যে নিরাপদেই ছিলাম, তবে পরিবারের সাথে যোগাযোগ করতে পারিনি, এখন বাড়ী যাবো।

 

দুপুরের পর ভারতের চব্বিশ পরগনা জেলায় রওনা হন তারা। মোংলা থানার ওসি মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

 

ওসি মনিরুল আরও বলেন, গত ৩১ আগষ্ট অবৈধভাবে বাংলাদেশের জলসীমায় ঢুকে মাছ শিকার করার সময় কোস্টগার্ডের জাহাজ মনসুর আলী তাদের আটক করেন। এসময় বিপুল পরিমান সামুদ্রিক মাছসহ ‘এফ বি মা মঙ্গলচন্ডী-১ এবং মঙ্গলচন্ডী-৩’ নামে দুটি ফিশিং বোটও আটক করে তারা। পরে ১ সেপ্টেম্বর মোংলা কোস্টগার্ড তাদের নামে মোংলা থানায় মামলা করেন। এরপর ২ সেম্পেম্বর তাদের বাগেরহাট জেলহাজকে প্রেরণ করা হয়।

 

গ্রেফতার হওয়া এসব ভারতীয় জেলেরা এক মাস ছয়দিন জেলহাজতে থাকার পর শনিবার (৮ অক্টোবর) জামিনে মুক্ত হন বলেও জানান ওসি মনিরুল।

 

 

বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ জলসীমায় অনুপ্রবেশ করে মাছ ধরার সময় গত বুধবার (৩১ আগস্ট) সন্ধ্যায় কোস্টগার্ডের জাহাজ বিসিজিএস মনসুর আলী সমুদ্রের পশ্চিম আইএমবিএল থেকে ৭৭ নটিক্যাল মাইল অদূরে বাংলাদেশের জলসীমা থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় জেলেদের ব্যবহৃত ট্রলার এফভি মঙ্গল চান্দী-২৫, এফভি মঙ্গল চান্দী-৩ এবং তাতে থাকা বিভিন্ন প্রজাতির মাছ জব্দ করা হয়।

 

বৃহস্পতিবার (০১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আটক ভারতীয় জেলেদের কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের মোংলা সদর দপ্তরে আনা হয়। এরপর আটক ওই ৩১ জেলেকে শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) আদালতের মাধ্যমে বাগেরহাট কারাগারে পাঠানো হয়। তাদের বাড়ি ভারতের দক্ষিণ-চব্বিশ পরগোনা জেলার কাকদ্বীপসহ বিভিন্ন এলাকায়।

 

এর আগে তিন মাস চারদিন কারাভোগের পর গত মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) একই ঘটনায়

জামিনে মুক্ত হন ১৩৫ ভারতীয় জেলে।

শেয়ার করুন