ঢাকা ১২:০৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবিসি ন্যাশনাল নিউজ২৪ ইপেপার

ব্রেকিং নিউজঃ
ভেড়ামারায় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশন আয়োজিত ঈদ পুনর্মিলনী ঠাকুরগাঁওয় পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, অল্প বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় পুরো এলাকা বগুড়ার জোড়া খুনের প্রধান আসামী গ্রেফতার বালিয়াডাঙ্গীতে এইচএসসি ২০০২ ব্যাচের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত দিনাজপুরে শ্যামলী পরিবহনের ধাঁক্কায় এ্যাম্বুলেন্স চালকের মর্মান্তিক মৃত্যু রংপুরে তিস্তার পানি বিপৎসীমার ওপরে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ডোমারে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হলো শতবর্ষী অনুষ্ঠান লালমনিরহাটে বজ্রপাতে ৫ টি গবাদিপশু পুড়ে যায় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি (বিএমএসএস) নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি এস এম জহিরুল ইসলাম বিদ্যুত ও সাধারণ সম্পাদক মো: জসিম উদ্দিন জসিম ডোমারে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার নামাজ অনুষ্ঠিত

উপাদীতে সম্পত্তিগত বিরোধে, দোকানপাট ও বসতঘরে হামলা, আহত-৪, থানায় অভিযোগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:০২:২৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২ নভেম্বর ২০২২ ৪৩ বার পড়া হয়েছে

মোঃ সিয়াম: মতলব দক্ষিণ উপাদীতে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষ ও ভাড়াটে সন্ত্রাসীর হামলায় নারীসহ ৪ জন আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১নভেম্বর) ভোর ৬ ঘটিকার দিকে উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের করবন্দ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ হামলায় আহতরা হলেন- জাহানারা (৬৫) দিদার (৩২) আরশাদ উল্লাহ মিজি (৭৫), মাইনুউদ্দিন (৪২)।

 

এ ঘটনায় আহত জাহানারা ও দিদারকে গুরুত্ব অবস্থায় চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আহত আরশাদ উল্লাহ মিজি ও মাইনুউদ্দিন কে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এই বিষয়ে আরশাদ উল্লাহ মিজি বাদী হয়ে ৮ জনকে আসামী ও ২০/২৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মতলব দক্ষিণ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। আসামিরা হলেন মোঃ হেলাল তফাদার (৬০), কামরুল ইসলাম (২৩), মোঃ হাছান মাল (৫০), জসিম মাল(৪০), শাহাদাত মাল (৩০), জুলহাস মাল (৪০), মানিক মুন্সী (৫০), লিয়াকত ও তফাদার (৬০)।

 

থানায় লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানাযায় বিবাদীগনের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ জায়গাজমি নিয়া বিরোধ চলেছিল। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে মোঃ হেলাল তফাদার এর নেতৃত্বে বিবাদীরা জনবলে বলীয়ান হয়ে আরশাদ উল্লাহ কে প্রতিনিয়ত হুমকি ধমকি দিয়া আসতেছিল। সেই ধারাবাহিকতায় পরিকল্পিত ভাবে মোঃ হেলাল তফাদার , কামরুল ইসলাম , মোঃ হাছান মাল, জসিম মাল, শাহাদাত মাল , জুলহাস মাল, মানিক মুন্সী , লিয়াকত, তফাদার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী সহ

২০/২৫ জন বেআইনী জনতাবদ্ধে মিলিত হইয়া আরশাদ উল্লাহ’র মালিকানাধীন বিল্ডিং দোকানে অনধিকার প্রবেশপূর্বক ব্যাপক ভাংচুর চালায়। তাদের হাতে থাকা শাবল, হেমার, কুড়াল ইত্যাদি সরঞ্জামাদি নিয়া এলোপাতাড়ি পিটিয়ে দোকানের ইটের দেয়াল, শার্টার ভাংচুর করে আনুমানিক ৮,০০,০০০/- (আট লক্ষ) টাকার ক্ষতিসাধন করে।

 

আরশাদ ও তার পরিবারের লোকজন বাধা প্রদান করতে গেলে সকল সন্ত্রাসীরা এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি লাথি মেরে জাহানারা, দিদার, আরশাদ উল্লাহ মিজি ও মাইনুউদ্দিন কে শরীরের বিভিন্ন অংশে নীলা ফুলা জখম করে।

 

এই সময় সন্ত্রাসীরা জাহানারা বেগম এর গলায় থাকা ০২ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন, দোকানের ০৪টি শার্টার খুলিয়া নিয়া যায়। আহতদের ডাক চিৎকারে এলাকার লোকজন জড়ো হলে হেলাল প্রকাশ্যে হুমকি করে এই বিষয়ে বেশী বাড়াবাড়ি কিংবা মামলা মোকদ্দমা করলে আরশাদ উল্লাহ ও তার পরিবারের সদস্যদের পুনরায় মারধর করবে বড় ধরনের ক্ষতিসাধন করবে ও হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে।

 

এলাকা সুত্রে জানা যায় আরশাদ উল্লাহ ছেলে প্রবাসী মোস্তফা তাদের পাশের বাড়ির সৈয়দ আহমেদ ও তার ছোট ভাই নুরু আহমেদ তফাদার এর নিকট থেকে ২৮/০৯/২০২০ তারিখে ১০ শতক জমি ক্রয় করে। এই নিয়ে নিয়ে সৈয়দ আহমেদ ও নুরু আহমেদ এর মেজু ভাই হেলাল তফাদার জায়গা পাবে বলে বিভিন্ন সময় ছলচাতুরি করার চেষ্টা করে। হেলাল তফাদারের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা এসে আরশাদ উল্লাহ ছেলের ক্রয়কৃত সম্পত্তির উপর নির্মান করা দোকান ও ঘরে উপর তান্ডব চায়। কয়েক জনকে তারা আহত করে। পরে ৯৯৯ কল দিলে মতলব দক্ষিণ থানার সহকারী উপপরিদর্শক নাসিম ও সঙ্গীয় ফোর্স এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

 

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হেলাল ও তার সন্ত্রাসী বাহীনিরা পালিয়ে গেলে তাদের কারো বক্তব্য নেওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

উপাদীতে সম্পত্তিগত বিরোধে, দোকানপাট ও বসতঘরে হামলা, আহত-৪, থানায় অভিযোগ

আপডেট সময় : ১২:০২:২৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২ নভেম্বর ২০২২

মোঃ সিয়াম: মতলব দক্ষিণ উপাদীতে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষ ও ভাড়াটে সন্ত্রাসীর হামলায় নারীসহ ৪ জন আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১নভেম্বর) ভোর ৬ ঘটিকার দিকে উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের করবন্দ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ হামলায় আহতরা হলেন- জাহানারা (৬৫) দিদার (৩২) আরশাদ উল্লাহ মিজি (৭৫), মাইনুউদ্দিন (৪২)।

 

এ ঘটনায় আহত জাহানারা ও দিদারকে গুরুত্ব অবস্থায় চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আহত আরশাদ উল্লাহ মিজি ও মাইনুউদ্দিন কে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এই বিষয়ে আরশাদ উল্লাহ মিজি বাদী হয়ে ৮ জনকে আসামী ও ২০/২৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মতলব দক্ষিণ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। আসামিরা হলেন মোঃ হেলাল তফাদার (৬০), কামরুল ইসলাম (২৩), মোঃ হাছান মাল (৫০), জসিম মাল(৪০), শাহাদাত মাল (৩০), জুলহাস মাল (৪০), মানিক মুন্সী (৫০), লিয়াকত ও তফাদার (৬০)।

 

থানায় লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানাযায় বিবাদীগনের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ জায়গাজমি নিয়া বিরোধ চলেছিল। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে মোঃ হেলাল তফাদার এর নেতৃত্বে বিবাদীরা জনবলে বলীয়ান হয়ে আরশাদ উল্লাহ কে প্রতিনিয়ত হুমকি ধমকি দিয়া আসতেছিল। সেই ধারাবাহিকতায় পরিকল্পিত ভাবে মোঃ হেলাল তফাদার , কামরুল ইসলাম , মোঃ হাছান মাল, জসিম মাল, শাহাদাত মাল , জুলহাস মাল, মানিক মুন্সী , লিয়াকত, তফাদার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী সহ

২০/২৫ জন বেআইনী জনতাবদ্ধে মিলিত হইয়া আরশাদ উল্লাহ’র মালিকানাধীন বিল্ডিং দোকানে অনধিকার প্রবেশপূর্বক ব্যাপক ভাংচুর চালায়। তাদের হাতে থাকা শাবল, হেমার, কুড়াল ইত্যাদি সরঞ্জামাদি নিয়া এলোপাতাড়ি পিটিয়ে দোকানের ইটের দেয়াল, শার্টার ভাংচুর করে আনুমানিক ৮,০০,০০০/- (আট লক্ষ) টাকার ক্ষতিসাধন করে।

 

আরশাদ ও তার পরিবারের লোকজন বাধা প্রদান করতে গেলে সকল সন্ত্রাসীরা এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি লাথি মেরে জাহানারা, দিদার, আরশাদ উল্লাহ মিজি ও মাইনুউদ্দিন কে শরীরের বিভিন্ন অংশে নীলা ফুলা জখম করে।

 

এই সময় সন্ত্রাসীরা জাহানারা বেগম এর গলায় থাকা ০২ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন, দোকানের ০৪টি শার্টার খুলিয়া নিয়া যায়। আহতদের ডাক চিৎকারে এলাকার লোকজন জড়ো হলে হেলাল প্রকাশ্যে হুমকি করে এই বিষয়ে বেশী বাড়াবাড়ি কিংবা মামলা মোকদ্দমা করলে আরশাদ উল্লাহ ও তার পরিবারের সদস্যদের পুনরায় মারধর করবে বড় ধরনের ক্ষতিসাধন করবে ও হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে।

 

এলাকা সুত্রে জানা যায় আরশাদ উল্লাহ ছেলে প্রবাসী মোস্তফা তাদের পাশের বাড়ির সৈয়দ আহমেদ ও তার ছোট ভাই নুরু আহমেদ তফাদার এর নিকট থেকে ২৮/০৯/২০২০ তারিখে ১০ শতক জমি ক্রয় করে। এই নিয়ে নিয়ে সৈয়দ আহমেদ ও নুরু আহমেদ এর মেজু ভাই হেলাল তফাদার জায়গা পাবে বলে বিভিন্ন সময় ছলচাতুরি করার চেষ্টা করে। হেলাল তফাদারের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা এসে আরশাদ উল্লাহ ছেলের ক্রয়কৃত সম্পত্তির উপর নির্মান করা দোকান ও ঘরে উপর তান্ডব চায়। কয়েক জনকে তারা আহত করে। পরে ৯৯৯ কল দিলে মতলব দক্ষিণ থানার সহকারী উপপরিদর্শক নাসিম ও সঙ্গীয় ফোর্স এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

 

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হেলাল ও তার সন্ত্রাসী বাহীনিরা পালিয়ে গেলে তাদের কারো বক্তব্য নেওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন